July 12, 2020, 6:52 am

News Headline :
চরফ্যাশনেে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাজে অনিয়ম গাজীপুরের টঙ্গী বাজার এলাকা হ’তে বিদেশী মদ, বিদেশী বিয়ার এবং প্রাইভেটকারসহ কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার স্থানীয় নেতাদের সহযোগীতায় বস্তি উচ্চেদের চেস্টা উচ্ছেদের প্রতিবাদে বিক্ষোভ বস্তিবাসিদের বেলা অবেলায় গাবতলীতে তারেক রহমানের পক্ষে করোনা’য় আক্রান্ত পরিবার’কে মৌসুমী ফল দিলেন ছাত্রদল নেতা বিপ্লব ভাড়াটিয়া সেজে অপহৃত শিশু আব্দুল্লাহ(০৫) কে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার\ অপহরণকারী চক্রের মূল পরিকল্পনাকারীসহ ০২ সদস্য গ্রেফতার করোনা টেস্টে প্রতারণার কথা জানতেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি! দাবি জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরীর ভোলায় সাপের কামড়ে এক নারীর মৃত্যু সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে রায়গঞ্জ উপজেলা মডেল প্রেস ক্লাব উদ্বোধন এই তোমার পৃথিবী! ———– সাম্য
হাবিবের তাড়াহুড়ো নেই

হাবিবের তাড়াহুড়ো নেই

Spread the love

চলতি সময়ের অন্যতম শীর্ষ সংগীত পরিচালক ও শিল্পী হাবিব ওয়াহিদ। এরইমধ্যে অনেক জনপ্রিয় গান তিনি ধারাবাহিকভাবে উপহার দিয়েছেন। সমানভাবে সফলতার ছাপ রেখেছেন চলচ্চিত্র এবং অডিও অ্যালবামে। এমনকি চলতি সময়ের সিঙ্গেল প্রকাশের ট্র্যাডিশনের দিক দিয়েও বেশ এগিয়ে হাবিব। নিয়মিত সিঙ্গেল প্রকাশ করছেন ভিডিওসহ। চলতি প্রজন্মের অনেক শিল্পী-সংগীত পরিচালকও হাবিবকে আদর্শ মনে করেন।

সব মিলিয়ে সফলতা এবং জনপ্রিয়তা- এ দুটোকেই তিনি ধরে রেখেছেন দীর্ঘ সময় ধরে। চলতি সময়েও তিনি ব্যাপক ব্যস্ত রয়েছেন গান নিয়ে। সব মিলিয়ে কেমন আছেন? হাবিব ওয়াহিদ বলেন, অনেক ভালো আছি। ব্যস্ততার মধ্যে রয়েছি। কিন্তু এটা আমি উপভোগও করছি। সমপ্রতি আপনার ‘চলো না’ শিরোনামের গানটির মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হয়েছে। সাড়া কেমন মিলছে? হাবিব বলেন, এরইমধ্যে ইউটিউবে ২৫ লাখ দর্শক উপভোগ করেছেন গানটি। এটা কিন্তু খুব অল্প সময়ে। গানটি এই সময়ে এত ভালো অবস্থানে পৌঁছে যাবে ভাবিনি। সব কিছুর জন্য গানচিল মিউজিককে ধন্যবাদ। সামনের পরিকল্পনা কি? হাবিব বলেন, বেশ কিছু গান করছি। পরিকল্পনা আসলে তৎণাৎ হয়ে যায়। হয়তো ভালো কিছুই হবে। স্টুডিওতে প্রতিদিন নতুন গানের কাজ করছি। একটু একটু করে কাজ এগিয়ে নিচ্ছি। জিঙ্গেল ও চলচ্চিত্রের গানের কাজও চলছে। আসলে আমার মধ্যে কোনো তাড়াহুড়ো নেই। ভালো কিছুর জন্য সময় নিতেই হয়। তড়িঘড়ি করে ভালো কাজ হয় না। আমিও প্রতিটি গানেই পর্যাপ্ত সময় দেয়ার চেষ্টা করি। আশা করছি সামনেও ভালো ভালো গান সিঙ্গেল আকারে প্রকাশ করতে পারবো। আপনিতো নিজেই মিউজিক ভিডিওগুলোতে পারফর্ম করেন। কেমন লাগে? আসলে আমি যখন গান তৈরি করি,

তখনই একটা ভিউ চিন্তা করি। সে কারণে আমি নিজে মিউজিক ভিডিওতে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধও করি। আর এজন্য আমি চলচ্চিত্রের কাজও কমিয়ে দিয়েছি। কারণ, অনেক কষ্ট করে গান তৈরি করি। কিন্তু চিত্রায়ণটা মনের মতো হয় না। যার কারণে গানগুলো শতভাগ বের হয় না বলে মনে হয় আমার। কিন্তু মিউজিক ভিডিওর েেত্র সেটা হয় না। নিজের ইচ্ছেতেই কাজগুলো করা যায়। এ কারণে আমি নিজের গানে নিজে মডেল হিসেবেও কাজ করি। আর সেগুলো দর্শক গ্রহণও করছেন ভালোভাবে। এই কারণে আমার উৎসাহটাও বেশি। এখন মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন মনে হচ্ছে? হাবিব বলেন, অনেক ভালো অবস্থা। কোম্পানিগুলো ভালো বিনিয়োগ করছে। সেলফোন কোম্পানিগুলো এগিয়ে এসেছে। শিল্পীরা যে যার মতো করে গান প্রকাশ করতে পারছে। এখন গান শোনাটা আরও সহজ হয়েছে। যে কেউ নিজের ইচ্ছেমতো গান ইউটিউবে শুনতে ও দেখতে পারছেন। শিল্পীরা স্বত্ব নিজের কাছে রেখে গান প্রকাশ করতে পারছেন। আমার মনে হয় সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ইন্ডাস্ট্রি আরও ভালোর দিকে যাবে। আপনার পরবর্তী সময়ে যারা গান করছে তারা কেমন করছে বলে মনে হয়? হাবিব বলেন, ভালো করছে। অনেক মেধাবী শিল্পী-সুরকার আসছেন। একেকজনের স্টাইল একেক রকম। এটাইতো হওয়ার কথা ছিল। কারণ, প্রতিটি শিল্পীরই আলাদা সত্তা রয়েছে। সবারই নিজস্ব ধারা তৈরি করা উচিত। তাহলেই ইন্ডাস্ট্রিতে পরিবর্তন আসবে। শ্রোতারা বিভিন্ন ধরনের গান শুনতে পাবেন। হাবিব ওয়াহিদ আরও বলেন, আমার মনে হয় এখনকার শিল্পীদের মৌলিক গানের প্রতি আরও বেশি মনোযোগ দেয়া উচিত। কাভার গান করা যেতেই পারে। কিন্তু মৌলিক গানই একজন শিল্পীর আসল পরিচয় বহন করে। আর জনপ্রিয় মৌলিক গান একজন শিল্পীর ক্যারিয়ারের বড় সম্পদ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com