শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯, ০৮:৪৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
আবারো পতনের ধারায় পুঁজিবাজার বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার জারি বিনিয়োগের শর্ত শিথিল পুঁজিবাজারে ব্যাংকের রপ্তানি বাড়ছে শুকনো খাবারের জমে উঠেছে অনলাইন কেনাকাটা বাংলাদেশে তৈরি হবে মিতসুবিশি গাড়ি যে দেশে মালির বেতন ৬৩ হাজার; রানী-রাজার খবর নাই বেপরোয়া রোহিঙ্গা ইঞ্জিন ও পাওয়ার কার সঙ্কট ঈদে রেলযাত্রায় বিড়ম্বনা বাড়াতে পারে যানবাহনের মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডার রাজপথে বাড়াচ্ছে প্রাণহানির ঝুঁকি কৃষক কাঁদছে, পুড়ছে ধান! টিকেট পেতে ভোগান্তি ওয়াহাব-আমির-আসিফ পাকিস্তান বিশ্বকাপ দলে পাকিস্তানকে হারাল ইংল্যান্ড ব্রাজিলে মদের দোকানে বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ১১ চলে গেলেন কৌতুক অভিনেতা স্যামি শোর তাজিকিস্তানে কারাগারে দাঙ্গায় নিহত ৩২ খোলামেলা আলোচনায় মোনালিসা এবার মিলার বিরুদ্ধে মানহানীর মামলা নশিপুর ইউনিয়ন পরিষদে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা
খুলনা-১ আসনে বইছে নির্বাচনী হাওয়া

খুলনা-১ আসনে বইছে নির্বাচনী হাওয়া

Spread the love

সুন্দরবনের কোল ঘেঁষা খুলনার দাকোপ এবং শহর লাগোয়া বটিয়াঘাটা উপজেলা নিয়ে গঠিত খুলনা-১ নির্বাচনী এলাকা। আগামি একাদশ সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে এ আসনের বিভিন্ন দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীরা দিনরাত মাঠে গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে ব্যতিক্রম দেশের প্রধান বিরোধী রাজনীতিক শক্তি বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী অসংখ্য মামলার শিকার হয়ে গনসংযোগে কিছুটা ব্যকফুটে। উন্নয়নের দিক থেকে অবহেলিত এ আসনটি বরাবরই আওয়ামী লীগের ঘাঁটি হিসেবে বিবেচিত। একসময় আসনটি সংখ্যালঘু হিন্দু ভোটার অধ্যুষিত হিসেবে বিবেচীত থাকলেও সময়ের ব্যবধানে সেই চিত্র এখন বদলে গেছে। স্বাধীনতা পরবর্তীকালে নৌকার প্রার্থীরা বিজয়ি হয়ে আসছেন। ১৯৮৮ সালে জাপার বিদ্রোহী প্রার্থী আলহাজ শেখ আবুল হোসেন, ১৯৯৬ সালে আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী পঞ্চানন বিশ্বাস, একই বছর ১৫ ফেব্রæয়ারীর বিতর্কিত নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে শেখ নুরুল ইসলাম সংসদ সদস্য নির্বাচীত হয়েছিলেন। এ ছাড়া সকল নির্বাচনে এখানে নৌকার জয়জয়কর। কিন্তু দেশের অন্যান্য অঞ্চল অপেক্ষা উন্নয়ন বিবেচনায় দাকোপ বটিয়াঘাটা অনেকটা পিছিয়ে। এখানকার যোগাযোগ ব্যবস্থা, নদী ভাঙন ও সুপেয় পানি সংকট নাগরিকদের অন্যতম প্রধান সমস্যা। আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে উন্নয়নবঞ্চিত এ আসনে সাম্ভব্য প্রার্থীরা এ সকল সমস্যা সমাধান এবং উন্নয়নে অবদান রাখতে নানা প্রতিশ্রæতি দিয়ে কেন্দ্রে লবিং গ্রæপিংয়ের সাথে সাথে দিনরাত গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। মনোনয়নের জোরালো দাবীদার হিসেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ৩, বিএনপি, জাপা ও ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের একক প্রার্থী মাঠে আছে। ১৬ টি ইউনিয়ন এবং ১ টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত দু’টি উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৭২ হাজার ৫৪৬ জন। যার মধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৭০ জন। এবারের নির্বাচনে কেমন প্রার্থী প্রত্যাশা করেন এমন প্রশ্নের উত্তরে চালনা এম এম ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ অসীম কুমার থান্দার বলেন, সৎ যোগ্য জনদরদী উন্নয়নের মূল ¯্রােতধারার সাথে নিজ এলাকাকে সংযুক্ত করতে পারবে এমন প্রার্থীই তিনি প্রত্যাশা করেন। ঢাকা সরকারি বাংলা কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্র কিশোর বিশ্বাস বলেন, নির্লোভ জনবান্ধব ত্যাগী অসাম্প্রদায়িক আধুনিক উন্নত এলাকা গড়ার যোগ্যতা সম্পূর্ণ প্রার্থীই আমাদের প্রত্যাশা। বর্তমান এমপি খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি পঞ্চানন বিশ্বাস দলের সর্বস্থরে নিজের গ্রহণ যোগ্যতার কথা উল্লেখ করে তিনি আবার দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদী। এবার নিয়ে তিনি ৩ বার সংসদ সদস্য নির্বাচীত হয়েছেন। আগামীতে নির্বাচীত হলে তিনি যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজ করে মানুষের জীবনমান উন্নত করতে ভ’মিকা রাখবেন। সাবেক সংসদ সদস্য ননী গোপাল মÐল এবার দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদী হয়ে মাঠে ময়দানে গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। অপর জোরালো দাবীদার বিশিষ্ট ব্যবাসায়ী কৃষক পরিবার থেকে উঠে আসা দাকোপ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ শেখ আবুল হোসেন বলেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা এবার গ্রহনযোগ্যতার ভিত্তিতে মনোনয়ন দিবেন, সে বিচেনায় তিনি আশাবাদী। কারণ হিসেবে তিনি বলেন দলের সকল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ নির্বাচীত মেয়র, জেলা পরিষদ সদস্য এবং চেয়ারম্যানরা তার সাথে আছেন। তিনি নির্বাচীত হলে আইলা কবলিত ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার বাঁধ নির্মান, সুপেয় পানির ব্যবস্থা এবং ঝপঝপিয়া নদীতে ব্রিজ নির্মানসহ যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে ভুমিকা রাখবেন । তিনি একাধারে ইউপি চেয়ারম্যান ও দ্বিতীয় বারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচীত হয়েছেন। একাধীকবার নির্বাচীত ইউপি চেয়ারম্যান সাবেক সংসদ সদস্য ননীগোপাল মÐল কৃষি ও ব্যবসার সাথে জড়িত। তিনি মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, আগামীতে নির্বাচীত হলে এলাকার উন্নয়নের পাশাপাশি মাদক জঙ্গিবাদ মৌলবাদ নির্মুল এবং যুব সমাজকে যাঁরা বিপথগামী করছেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেয়ার কথা জানিয়েছেন। এ ছাড়া খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ দলীয় প্রধান চাইলে নির্বাচন করতে আগ্রহী বলে জানা গেছে। তা ছাড়া বটিয়াঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আশরাফুল আলম খান মনোনয়নের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এ ছাড়া বটিয়াঘাটা উপজেলার তরুণ এক শিল্পপতি নৌকার টিকিট পেতে মাঠে সরব উপস্থিতির জানান দিচ্ছেন। অপরদিকে দল ও জোটের একক প্রার্থী হিসেবে মাঠে আছেন প্রথম শ্রেণির ঠিকাদার খুলনা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ আমীর এজাজ খান। তবে একাধিক রাজনীতিক মামলা মোকাবেলায় ব্যস্ত থাকতে গিয়ে তিনি সেভাবে গনসংযোগ চালাতে পারছেন না। নির্বাচীত হলে দীর্ঘ বছর উন্নয়ন বঞ্ছিত দাকোপ বটিয়াঘাটা বাসীর জীবন মান উন্নয়নে তিনি সর্বাতœক কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন। এ ছাড়া বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও কলামিষ্ট জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং দলীয় চেয়ারম্যানের প্রেস এÐ পলিটিক্যাল সেক্রেটারি সুনীল শুভ রায় একক প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনি মাঠে এলাকার উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখার প্রতিশ্রæতি দিয়ে গনসংযোগ করছেন । স্থানীয় জাপার নেতাকর্মিরা একক নির্বাচন অপেক্ষা জোটবদ্ধ নির্বাচনে নিজ দল থেকে সুনীল শুভ’র মনোনয়নে বেশি আশাবাদী। অপর দিকে গনসংযোগে তেমন একটা দেখা না গেলেও ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে দলের জেলা সহসভাপতি মাওলানা আবু সাইদ নির্বাচন করবেন বলে জানা গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com