শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ০১:৪৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু সাড়ে ৬ হাজার ছাড়াল মৃত্যুপুরী ইতালিতে আজও ৭৬৬ প্রাণহানি শুধু নিউইয়র্কেই একদিনে ৫৬২ মৃত্যু দিল্লির তাবলিগ জামাত থেকে দুইদিনে ৬৪৭ জন আক্রান্ত বেলজিয়ামে প্রথম ৩ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত ব্রিটেনে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৬৮৪ জনের প্রাণ কাড়ল করোনা মমতা জাদুতে পশ্চিমবঙ্গে মৃতের সংখ্যা কমল? পুলিশের এক মাসের রেশন পাচ্ছেন গাজীপুরের হতদরিদ্ররা ৬০ হাজার পরিবারকে খাবার দিলেন গাজীপুর সিটি মেয়র গভীর রাতে ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিলেন প্রতিমন্ত্রী রাসেল ৯টি ট্রাকে করে বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দিলেন সাবেক এমপি ইতালিফেরত বোনের বাড়ি থেকে ফিরে জ্বর-কাশি, বাড়ি লকডাউন শেরপুরে করোনা প্রতিরোধে মোবাইল কোর্টের অভিযানে ২৪ টি মামলায় ৪৬,৫০০ টাকা অর্থদন্ড রাতে দুই কিলোমিটার হেঁটে দরিদ্রদের জন্য খাবার নিয়ে গেলেন ইউএনও আকাশ থেকে খুলে বাড়ির ওপর পড়ল হেলিকপ্টারের দরজা করোনা প্রণোদনায় উপেক্ষিত স্থানীয় উদ্যোক্তারা শ্রমিকের বেতন দিতে বিনা সুদে ঋণ পাবে রফতানি প্রতিষ্ঠান করোনায় পোল্ট্রি ও ডেইরি শিল্পে ক্ষতি দুই হাজার ৬২ কোটি টাকা পোশাকশিল্পে ৩ বিলিয়ন ডলারের রফতানি আদেশ বাতিল সন্ধ্যা পর্যন্ত তিন গ্রুপে মোবাইলে স্বাস্থ্যসেবা দেবে ড্যাব
গাজীপুরের শ্রীপুর এলাকার রহমানের হত্যাকারী তার স্ত্রী সামিরা সহ আটক-২

গাজীপুরের শ্রীপুর এলাকার রহমানের হত্যাকারী তার স্ত্রী সামিরা সহ আটক-২

Spread the love

জনতারবাংলা ডেস্ক
গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ র‌্যাব-১, গাজীপুর এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, উক্ত হত্যাকান্ডের ১নং এজাহারনামীয় আসামী ভিকটিমের ৪র্থ স্ত্রী মোসাঃ সামিরা আক্তার(২৬) রাজধানীর দক্ষিণ খান এলাকায় সু-কৌশলে আত্মগোপন করে আছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে অত্র কোম্পানীর কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন, (জি), বিএন এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় অফিসার/ফোর্স সহ রাজধানীর দক্ষিণ খান এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভিকটিম আঃ রহমান(৫২) এর ৪র্থ স্ত্রী আসামী ১। মোসাঃ সামিরা আক্তার(২৬), স্বামী-মৃত আঃ রহমান, পিতা-মোঃ আলী হোসেন, মাতা-মোসাঃ মালতি বেগম, সাং-চকপাড়া, থানা-শ্রীপুর, জেলা-গাজীপুর এবং তাকে পলায়নে সহায়তাকারী সামিরার বাবা ২। মোঃ আলী হোসেন(৫৫), পিতা-মৃত ফজলুল হক, মাতা-রিজিয়া বেগম, সাং+থানা-উজিরপুর, জেলা-বরিশাল, এ/পি-জয়দেবপুর (ছামিদুল এর বাসার ভাড়াটিয়া), থানা-সদর, জিএমপি, গাজীপুরদ্বয়কে গ্রেফতার করা হয়।

আসামী সামিরার ভাষ্যমতে, সামিরা নিহত ভিকটিমের ৪র্থ স্ত্রী এবং ভিকটিম পেশায় একজন জমির ব্যবসায়ী ছিলেন। গত ১০ ফেব্রæয়ারি ২০২০ তারিখ ভিকটিম আঃ রহমান রতন নামের তার এক ব্যবসায়িক পাটনার এর সাথে স্ত্রী সামিরাকে দিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্ব যৌন কাজে লিপ্ত করে। একই তারিখ রাত অনুমান ১১০০ টার দিকে রতন নামে ঐ ব্যক্তি তাদের বাসা হইতে চলে যায় এবং ধৃত আসামী সামিরা পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে গত ১১ ফেব্রæয়ারি ২০২০ তারিখ ভোর অনুমান ০৩.০০ ঘটিকার দিকে বাসায় থাকা ধারালো দা দ্বারা তার স্বামী ভিকটিম আঃ রহমানকে ঘুমন্ত অবস্থায় জবাই করে এবং মৃত নিশ্চিত হওয়ার পর আসামী লাশ তোশকে মুড়িয়ে রাখে। লাশ যেন চেনা না যায় তার জন্য লাশের মুখ এসিড দিয়ে ঝলসে দেওয়া হয়। হত্যাকারী ভিকটিমের ৪র্থ স্ত্রী সামিরা হত্যা পরবর্তী ০৩ দিন একই বাসায় অবস্থান করে অবশেষে লাশ সরিয়ে ফেলতে ব্যর্থ হয়ে বাবা-মার সহায়তায় উক্ত বাসা থেকে পালিয়ে যায়। ধৃত আসামী সামিরা পালিয়ে প্রথমে গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর থানার ফুলবাড়ী এলাকায় তার এক বান্ধবীর বাসায় ০২ দিন আত্মগোপন করে থাকে এবং সেখান থেকে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখ পালিয়ে তার মামার বাসা নওগাঁ যায়, সেখানে কিছুদিন অবস্থান করে গত ২৩ ফেব্রæয়ারি ২০২০ তারিখ রাজধানীতে এসে রাজধানীর দক্ষিণ খান এলাকায় তার চাচার বাসায় আত্মগোপন করে থাকে। অবশেষে র‌্যাব তাদেরকে রাজধানীর দক্ষিণ খান এলাকা হইতে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামী সামিরা উক্ত খুনের ঘটনার সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং ঘটনার মর্মান্তিক বর্ণনা দেয়।
র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে, ধৃত আসামী সামিরা এবং ভিকটিম এর উভয়ই বাড়ী গাজীপুর শ্রীপুর এলাকায় হওয়ায় সেই সুবাদে দুজনের মধ্যে পূর্ব পরিচিত ছিল। গত ২০১৬ সালে ভিকটিম আঃ রহমার তার ২য় স্ত্রীকে নিয়ে গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গীতে বসবাস করত। সামিরা টঙ্গী সরকারী কলেজে ডিগ্রি পরীক্ষার্থী ছিল বিধায় তাদের দুজনের মধ্যে পূর্ব পরিচিতি থাকার কারণে সামিরা ভিকটিমের টঙ্গী বাসায় থেকে তার ডিগ্রি পরীক্ষা দিত, সেই সুবাদে ভিকটিম আঃ রহমান সামিরাকে বিভিন্ন ভাবে বিবাহের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে ব্যথ হয়। অবশেষে ভিকটিম আঃ রহমান সামিরাকে কৌশলে খাবারের সাথে ঘুমের ঔষধ পান করিয়ে অজ্ঞান করে তার টঙ্গীস্থ বাসায় তাকে একাধিক বার ধর্ষণ করে এবং ধর্ষনের ভিডিও ধারন করে। পরবর্তীতে উক্ত ধর্ষনের ভিডিও এবং হত্যার ভয় দেখিয়ে ভিকটিম আঃ রহমান আসামী সামিরাকে বিভিন্ন সময় দিনের পর দিন ধর্ষণ করে আসে। উক্ত ধর্ষনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ায় সামিরার প্রথম স্বামী তাকে ডিভোর্স দেয়, তারপর থেকে সামিরা শ্রীপুর নয়নপুর এলাকায় একটি ঔষধের দোকান পরিচালনা করে জীবিকা নিবাহ করে আসিতেছিল। গত ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ভিকটিম সামিরাকে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক কোর্টের মাধ্যমে বিবাহ করে এবং তাকে নিয়ে শ্রীপুর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে সংসার শুরু করে। ২০১৮ সালের পর থেকে ঘটনার দিন অথ্যাৎ ১১ ফেব্রæয়ারি ২০২০ তারিখ রাত পর্যন্ত ভিকটিম আঃ রহমান ব্যবসায়িক স্বার্থে আবার কখনো বিপুল টাকার বিনিময়ে তার পাটনারদের সাথে স্ত্রী সামিরাকে যৌন কাজে লিপ্ত হতে বাধ্য করত। এইসব নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে সামিরা ভিকটিম আঃ রহমানের কাছ ডিভোর্স চাইলে ভিকটিম সামিরাকে সহ তার মা-ভাইকে খুন করার হুমকি দেয়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আসামী সামিরা তার স্বামী ভিকটিম আঃ রহমানের উপর প্রতিশোধ বশতঃ উক্ত খুন করে।
গ্রেফতারকৃত আসামীকে গাজীপুর শ্রীপুর থানায় হস্তান্তরের ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com