সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:২৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা : সম্পৃক্ততায় ইসির ১৫ কর্মকর্তা! ইয়াবাসহ হাতিরঝিল আ.লীগ সভাপতির ছেলে আটক ‘অভিযানে দলের ইমেজের ক্ষতি হবে না বরং বাড়বে’ গলাচিপায় মাদক সেবী ও বিক্রেতার আত্মসমর্পন ফুল দিয়ে বরণ ও পুলিশিং কার্যলয় উদ্বোধন এবার গুলশানের স্পা সেন্টারে পুলিশের অভিযান এমএমসি’র নির্বাহী পরিচালক সাংবাদিক কামরুল হাসান মঞ্জুর মৃত্যুতে বিএমএসএফ’র শোক প্রকাশ কেন্দ্রীয় ছাত্রদল সভাপতি খোকন ও সম্পাদক শ্যামল’কে গাবতলী থানা ছাত্রদলের অভিনন্দন নড়াইলে সন্ত্রাসী হামলায় ৩ শিক্ষক আহত শেরপুর হতে অপহৃত ভিকটিম(28) গাজীপুর মির্জাপুর এলাকা হতে উদ্ধার গাজীপুরের টঙ্গী বাজার এলাকায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা ভর্তি পরীক্ষার্থীদের নিয়ে গ্রীণ ভয়েসের ব্যতিক্রম উদ্যোগকে সাধুবাদ জানালেন ডাকসুর এজিএস গলাচিপায় মাদক সেবী ও বিক্রেতার আত্মসমপর্ন ফুল দিয়ে বরণ ও পুলিশিং কার্যলয় উদ্বোধন গাজীপুর নাওজোর এলাকা হইতে ৬১০পিস ইয়াবাসহ ২ জন ইয়াবা ডিলার গ্রেফতার তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় সাংবাদিক নেতা আজমীর তালুকদারকে অব্যাহতি সিলেটে এনটিভির ব্যুরো বুলবুলকে গ্রেফতারের নিন্দা: নি:শর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছে বিএমএসএফ গাজীপুর ভোগড়া এলাকা হ’তে শীর্ষ ছিনতাই চক্রের ০১ জন সদস্য গ্রেফতার গাবতলীতে মুক্তিযোদ্ধা মহসিনের কুলখানী অনুষ্ঠিত টঙ্গীর জাভান হোটেলে ও বাসাবাড়িতে পুলিশের অভিযান বিপুল পরিমান মদ ও বিয়ারসহ গ্রেফতার-২০ গাজীপুরের সালনা এলাকা হতে অপহৃত ভিকটিম উদ্ধার এবং মূল অপহরণকারী গ্রেফতার গাজীপুরের টঙ্গী বাজার এলাকায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা
টঙ্গী সরকারি হাসপাতালের আউট সোর্সিং কর্মচারির দাপট!! তিনিই এবার পেটালো ঔষধ কোম্পানীর ৩ বিক্রয় প্রতিনিধিকে

টঙ্গী সরকারি হাসপাতালের আউট সোর্সিং কর্মচারির দাপট!! তিনিই এবার পেটালো ঔষধ কোম্পানীর ৩ বিক্রয় প্রতিনিধিকে

Spread the love

মৃণাল চৌধুরী সৈকত, টঙ্গী

টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতাল আউট সোর্সিং কর্মচারি তৌহিদুল ইসলাম হৃদয় এবার বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর ৩ বিক্রয় প্রতিনিধিকে পিটিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার দুপুর সাড়ে ১২ টায় এ ঘটনা ঘটে। এছাড়াও হাসপাতালের তত্বাবধায়ক মো.কমর উদ্দিনের নির্দেশে ওই কর্মচারীর বিরুদ্ধে হাসপাতালের ইমারজেন্সি ও বিভিন্ন বিভাগ থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদা আদায়ের অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে।

বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধিরা জানায়, হাসপাতালের তত্বাবধায়করা. কমর উদ্দিনের অনুমতি ক্রমে প্রতি সপ্তাহে ২দিন রোববার ও বুধবার বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধিরা দুপুর ১২ টার পর ডা. ভিজিট করতে পারবেন। সে হিসেবে গতকাল রোববার বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধিরা দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিরা ডাক্তারের চেম্বারের পাশে অপেক্ষা করতে থাকে। এসময় হাসপাতালের আউট সোর্সিং কর্মচারি হৃদয় নিজেকে সরকারী নিয়ম বর্হিভূত নিজেকে ওয়ার্ড মাষ্টার পরিচয় দিয়ে প্রতিনিধিদের হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যেতে নির্দেশ দেয়। আর বলে মন্ত্রী মহোদয়ের নিষেধ আছে আপনাদের হাসপাতালে প্রবেশে। প্রতিনিধিরা তার কথা না শোনে অপেক্ষা করতে থাকলে আউট সোর্সিং কর্মচারি হৃদয় ক্ষীপ্ত হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এতে প্রতিবাদ করলে তৌহিদুল ইসলাম হৃদয় ও তার অপর দুই সহযোগী মিলে ঔষধ কোম্পানী হেলথ কেয়ারের আরিফুল ইসলাম, জুবায়েদুল ইসলাম এবং রেডিয়েন্ট ঔষধ কোম্পানীর আদম শফিউল্লাহকে কিল, ঘুষি, চড়থাপ্পর মেরে আহত করে এবং প্রতিনিধিদের হাতে থাকা ব্যাগ ছুঁড়ে ফেলে দেয়। পরে হাসপাতালে উপ¯ি’ত লোকজন হৃদয়কে শান্ত করার চেষ্টা করেন।

ঔষধ বিক্রয় প্রতিনিধিরা জানায়, আউট সোর্সিং কর্মচারি হৃদয় হাসপাতাল গেইটের এক পাশে তাদের মোটর বাইক রাখার জন্য তত্বাবধায়কের নামে নিয়মিত সপ্তাহ ভিত্তিক টাকা নিতো, সেই টাকা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে এবং হাসপাতাল ভিজিট করতে হলে ডা. কমর উদ্দিন ও হৃদয়কে নিয়মিত টাকা দিতে হবে বলে দাবী করে। এতে রাজি না হওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবী করেন প্রতিনিধিরা।

জরুরী বিভাগের একাধিক ব্রাদার নাম প্রকাশ নাকরার শর্তে জানান, প্রতি মাসে ১৪ জন ব্রাদারের কাছ থেকে ৭শ করে মোট ৯ হাজার ৮শ টাকাসহ বিভিন্ন খাত থেকে জরুরী বিভাগের ইনচার্জ তারেক মাহমুদের মাধ্যমে উঠিয়ে ডা.কমরউদ্দিন ৫ হাজার, ডা. পারভেজ ৫ হাজার, হৃদয় ৫ হাজার হাতিয়ে নেয়। এছাড়াও রয়েল নাসিং ইনষ্টিটিউট নামের একটি প্রতিষ্ঠান সরকারী হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ও আরএমও সাথে ২ লাখ টাকা চুক্তিতে তাদের ছাত্র/ছাত্রীদের ইন্টার্নি করার জন্য হাসপাতালে পাঠালে আউট সোর্সিং কর্মচারি হৃদয় ২৫ হাজার টাকা চাঁদা নিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনি”ছুক একটি হাসপাতালের মার্কেটিং কর্মকর্তা বলেন, আউট সোর্সিং কর্মচারি হৃদয় হাসপাতালে দালালদের নির্মূলের কথা বলে বেড়ায় অথচ ¯’ানীয় প্রাইভেট হাসপাতাল, ক্লিনিক বা ডায়াগোনষ্টিক সেন্টারের মালিক পক্ষের কাছ থেকে ডাক্তার ও ব্রাদারদের মাধ্যমে কৌশলে রোগী সরবরাহের নামে টাকা আদায়, হাসপাতাল সংস্কার কাজে নিয়োজিত কন্ট্রাকটরের কাছ থেকে উৎকোচ গ্রহনের মতো অভিযোগও রয়েছে।

অন্যদিকে হাসপাতাল মসজিদ কমিটিতে জোর করে থাকার চেষ্টা, রহস্যজনক কারণে মসজিদের টাকা উত্তোলনকারী সাইফুলের সাথে অসদাচরণ, হাসপাতালের ঔষধ সরবরাহকারী বিউটির চাকুরি খেয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।

একটি বিশেষ সূত্রে আরো জানা যায়, ¯’ানীয় প্রভাবশালী নেতাদের নাম ভাঙ্গিয়ে হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা.কমরউদ্দিন ও আরএমও ডা.পারভেজকে ম্যানেজ করে একজন আউট সোর্সিং কর্মচারি রাতারাতি ওয়ার্ড মাষ্টার বনে যায় এবং ক্ষমতার অপ-ব্যবহার করে সরকারী হাসপাতালের নতুন ভবনের দ্বিতীয় তলায় একটি কক্ষ দখল করে সাজ-সজ্জিত অফিস এবং সেখানে সরকারী টেলিফোন ব্যবহার করছে ৫ম শ্রেনী পড়–য়া আউট সোর্সিং কর্মচারি তৌহিদুল ইসলাম হৃদয়। সূত্রটি আরো জানায়, ওয়ার্ড মাষ্টার পদটি তৃতীয় শ্রেনীর একটি পদ,   এই পদে ই”েছ করলেই তত্বাবধায় সাহেব নিয়োগ দিতে পারেন না। এ পদে নিয়োগ সংক্রান্ত সরকারী রাজস্ব খাত থেকে সার্কুলার হলে পরিক্ষার মাধ্যমে নিয়োগ দিতে হয়। গাজীপুর¯’ ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এখনো নিয়োগ হয়নি। তবে একটি বড় হাসপাতালে এ পদে ১৫ জন ওয়ার্ড মাষ্টার নিযোগ হতে পারে বলেও জানান সূত্রটি।

হাসপাতালের বেশ কয়েক জন কর্মচারী নাম প্রকাশ নাকরার শর্তে জানান, জরুরী বিভাগের সিনিয়র ব্রাদার  মোস্তাফিজুর রহমান, ফার্মাসিষ্ট বিউটি আক্তার, হাসপাতালের ডাক্তার, নার্স ও আউট সোসিং কর্মচারীদের সাথে অসদাচরণের বিষয়টি ইতিপূর্বে ¯’ানীয় মন্ত্রী মহোদয়কে জানানো হয়েছে। এ সব বিষয়ে কোন প্রতিকার না পেয়ে অনেকেই হতাশা প্রকাশ করেন। তারা আরো বলেন, একজন আউট সোর্সিং কর্মচারির কাছে হাসপাতালে কর্মরত সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারিরা জিম্মি হয়ে পড়েছে।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. পারভেজ হোসাইনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, এসব ব্যপারে আমি কিছ ুবলতে পারবো না, তবে ঔষধ বিক্রয় প্রতিনিধিদের গায়ে হাত তোলার বিষয়টি দু:খ জনক। তৌহিদুল ইসলাম হৃদয়কে ওয়ার্ড মাষ্টার হিসেবে তত্বাবধায়ক সাহেব নিয়োগ দিয়েছেন, বাকিটা ওনার কাছ থেকে জেনে নিন।

এব্যাপারে জানতে চাইলে শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. কমর উদ্দিন নিজেকে অত্যন্ত ক্ষমতাধর তত্বাবধায়ক হিসেবে বলেন, আমি সরকারী চাকুরি করি, আর মাত্র কয়েক মাস বাকি, অবসরে যাবো। হাসপাতালের ভালো মন্দ দেখার দায়িত্ব আমার, কোনটা করবো আর করবোনা সেটা আমি ভালো বুঝি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com