শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯, ০৮:৪৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
আবারো পতনের ধারায় পুঁজিবাজার বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার জারি বিনিয়োগের শর্ত শিথিল পুঁজিবাজারে ব্যাংকের রপ্তানি বাড়ছে শুকনো খাবারের জমে উঠেছে অনলাইন কেনাকাটা বাংলাদেশে তৈরি হবে মিতসুবিশি গাড়ি যে দেশে মালির বেতন ৬৩ হাজার; রানী-রাজার খবর নাই বেপরোয়া রোহিঙ্গা ইঞ্জিন ও পাওয়ার কার সঙ্কট ঈদে রেলযাত্রায় বিড়ম্বনা বাড়াতে পারে যানবাহনের মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডার রাজপথে বাড়াচ্ছে প্রাণহানির ঝুঁকি কৃষক কাঁদছে, পুড়ছে ধান! টিকেট পেতে ভোগান্তি ওয়াহাব-আমির-আসিফ পাকিস্তান বিশ্বকাপ দলে পাকিস্তানকে হারাল ইংল্যান্ড ব্রাজিলে মদের দোকানে বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ১১ চলে গেলেন কৌতুক অভিনেতা স্যামি শোর তাজিকিস্তানে কারাগারে দাঙ্গায় নিহত ৩২ খোলামেলা আলোচনায় মোনালিসা এবার মিলার বিরুদ্ধে মানহানীর মামলা নশিপুর ইউনিয়ন পরিষদে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা
ড. কামালের ব্যাংক হিসাব তলব

ড. কামালের ব্যাংক হিসাব তলব

Spread the love

গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন এবং তার প্রতিষ্ঠান ড. কামাল হোসেন অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটসের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য তলব করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

২০১০ সালের ১ অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত যাবতীয় লেনদেনের তথ্য চেয়ে সম্প্রতি সব ব্যাংকে চিঠি পাঠিয়েছে এনবিআর। সাত দিনের মধ্যে ব্যাংকগুলোকে এ তথ্য পাঠাতে হবে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল থেকে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, ড. কামাল হোসেনের একক বা যৌথ নামে অথবা তার মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নামে কোনো মেয়াদী আমানত হিসাব, সঞ্চয়ী হিসাব, চলতি হিসাব, ঋণ হিসাব, বৈদেশিক মুদ্রা অ্যাকাউন্ট, ক্রেডিট কার্ড, লকার বা ভল্ট সুবিধা থাকলে নির্দিষ্ট ছকে ২০১০ সালের ১ অক্টোবর থেকে হালনাগাদ তথ্য দিতে হবে। সঞ্চয়পত্র বা অন্য কোনো সেভিংস ইনস্ট্রুমেন্ট, বিনিয়োগ প্রকল্প, আমানত প্রকল্প বা অন্য কোনো ধরন কিংবা নামে হিসাব পরিচালিত হলে সে তথ্য পাঠাতে হবে। এসবের পাশাপাশি ড. কামাল বা তার প্রতিষ্ঠানের নামে ঋণের বিপরীতে রক্ষিত জামানতের তথ্যও পাঠাতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে দুটি ছক সংযুক্ত করা হয়েছে। একটি ছকে ঋণ হিসাব বাদে অন্যান্য হিসাবের তথ্য চাওয়া হয়েছে। সেখানে বছরভিত্তিক প্রকৃত জমা, সুদ, উৎসে আয়কর কর্তনের পরিমাণ এবং স্থিতির তথ্য দিতে হবে। অপর একটি ছকে ঋণ-সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য চাওয়া হয়েছে। এখানে বলা হয়েছে, উল্লেখিত সময়ে উত্তোলিত ঋণের পরিমাণ, সুদ ও চার্জ বাদে পরিশোধিত ঋণ, ধার্যকৃত সুদ বা চার্জ এবং ঋণস্থিতির পরিমাণ উল্লেখ করতে হবে।

ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে বিএনপিসহ কয়েকটি দল নিয়ে গঠিত রাজনৈতিক জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আটটি আসনে বিজয়ী হয়। ফল প্রত্যাখ্যান করে সংসদে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ঐক্যফ্রন্ট। ফ্রন্টের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে গণফোরামের দুই এমপি সংসদে যোগ দিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com