বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ইঞ্জিন ও পাওয়ার কার সঙ্কট ঈদে রেলযাত্রায় বিড়ম্বনা বাড়াতে পারে যানবাহনের মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডার রাজপথে বাড়াচ্ছে প্রাণহানির ঝুঁকি কৃষক কাঁদছে, পুড়ছে ধান! টিকেট পেতে ভোগান্তি ওয়াহাব-আমির-আসিফ পাকিস্তান বিশ্বকাপ দলে পাকিস্তানকে হারাল ইংল্যান্ড ব্রাজিলে মদের দোকানে বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ১১ চলে গেলেন কৌতুক অভিনেতা স্যামি শোর তাজিকিস্তানে কারাগারে দাঙ্গায় নিহত ৩২ খোলামেলা আলোচনায় মোনালিসা এবার মিলার বিরুদ্ধে মানহানীর মামলা নশিপুর ইউনিয়ন পরিষদে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা গাবতলীতে আ’লীগ নেতা শিলু’র উদ্যোগে ইফতার মাহফিল গাবতলীতে স্বামীর সন্ধান চেয়ে গৃহবধুর সংবাদ সম্মেলন বাগবাড়ীতে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে ব্যাকআপ হিসেবে থাকছেন বাংলাদেশের ৬ ক্রিকেটার রমিজ রাজার মুখে বাংলাদেশ দলের ভূয়সী প্রশংসা ইমামের চোট গুরুতর! উৎকণ্ঠা পাক শিবিরে ছাত্রলীগের তালিকায় আরও ৮২ বিতর্কিত নেতা মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে বারবার ছুটে আসি: সালমা ইসলাম এমপি
নির্বাচনে না জিতলে আমরা কেউ বেঁচে থাকতে পারবো না -এমপি শেখ হেলাল

নির্বাচনে না জিতলে আমরা কেউ বেঁচে থাকতে পারবো না -এমপি শেখ হেলাল

Spread the love

মির্জা বদরুজ্জামান টুনু, যশোর ব্যুরো : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দীন বলেছেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আমাদের জন্য কঠিন নির্বাচন। এই নির্বাচনে জয়ী হলে আমরা টিকে থাকবো, না হলে আমরা কেউ  বেঁচে থাকতে পারবো না ’।

তিনি বলেন, ‘দেশ আজ দুটি ভাগে বিভক্ত। এক ভাগে রয়েছে শেখ হাসিনা আর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। অন্যপক্ষে রয়েছে বিএনপির নেতৃত্বে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি। যারা বাংলাদেশের অস্তিত্বকে স্বীকার করে না।’

শেখ হেলাল বলেন, ‘যশোরবাসীর জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটা বার্তা নিয়ে এসেছি। তা হলো, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সবকিছু ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকা  প্রতীককে জেতাতে হবে।’

জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর পৌর কমিউনিটি সেন্টারে এ বর্ধিত সভা হয়।

সভায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য পীযূষকান্তি ভট্টাচার্য, বিশেষ অতিথি হিসেবে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান, কার্যকরি সদস্য এসএম কামাল, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার বক্তৃতা করেন।

বর্ধিত সভায় যশোরের ছয়টি আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ, শেখ আফিল উদ্দিন, স্বপন ভট্টাচার্য্য, মনিরুল ইসলাম, মেজর জেনারেল(অব.) ডা. নাসির উদ্দিনসহ বিভিন্ন উপজেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় শেখ হেলাল আরো বলেন, ‘প্রাচীন ও বড় দল হিসেবে আওয়ামী লীগ থেকে অনেকেই মনোনয়ন চাইতে পারেন। এটা খারাপ কিছু নয়। কিন্তু সবাইকে মনোনয়ন দেওয়া সম্ভব নয়। স্বাভাবিকভাবেই অনেকেই মনোনয়ন পাননি। এটাকে যদি কেউ খারাপভাবে নেন, তাহলে সেটা ভালো রাজনীতি হবে না। যিনিই মনোনয়ন পান- আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকবো নৌকার পক্ষে। আমরা এক থাকলে, ঘর ঠিক থাকলে, দল ঠিক থাকলে ইনশাআল­াহ বাংলাদেশে আওয়ামী লীগকে মোকাবেলা করার শক্তি কারো নেই।’

তিনি বলেন, ‘বড় দলে গ্রæপিং থাকবেই। তাই বলে দলের প্রয়োজনের সময় আপনারা কেউ ভুল সিদ্ধান্ত নেবেন না। নেত্রী আমাদের শেষ আস্থার জায়গা। উনি যে নির্দেশ দেবেন, আমরা সেটা বাস্তবায়ন করব। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে আপনারা ভালো থাকবেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে দেশ ভালো থাকবে না। তাই নৌকাকে বিজয়ী করে আপনারা আওয়ামী লীগকে আবার ক্ষমতায় নিয়ে আসবেন। ইনশাআল­াহ আগামীতে বাংলাদেশে কেউ আর বিএনপির নাম নেবে না।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সবচেয়ে খারাপ সময়েও যশোরবাসী আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে। এবারো যশোরবাসী ভুল করবে না।’

তিনি জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসা দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘কে মনোনয়ন পেল, সে আপনার লোক না কার লোক, এসব দেখতে যাবেন না। নেত্রী শেখ হাসিনা মনোনয়ন দিয়েছেন। শেখ হাসিনাকে যদি আবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান, তাহলে নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে হবে। সবাইকে মনে রাখতে হবে, আপনি নৌকায় ভোট দিচ্ছেন মানেই আপনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভোট দিচ্ছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com