রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরনাম
সাংবাদিকসহ আহত-৫ \ গাড়ি ভাংচুর টঙ্গীর কাদেরিয়ায় টেন্ডার শিডিউল জমাদানের সময় সন্ত্রাসীদের হামলা উত্তরার দক্ষিনখানে দেবরের হাতে ভাবি খুন বাঁচানো গেলনা চৌগাছার ক্যান্সার আক্রান্ত প্রাথমিক শিক্ষিকা সাগরিকাকে যশোরের শত বছরের পুরোনো ঐতিহ্যবাহী জেলা পরিষদ ভবনটি ভেঙ্গে ফেলা হবে কিনা তানিয়ে গণশুনানী অনুষ্ঠিত পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে বিএনপির কর্মসূচি পালন ‘রেড’ জোনে যেসব আর্থিক প্রতিষ্ঠান বাণিজ্য মেলায় পুরস্কার পেল ৪২ প্রতিষ্ঠান গো-খাদ্য ও দুধে ক্ষতিকর কেমিক্যাল! ‘বিএনপির আন্দোলনের মতো সামর্থ্য নেই, নালিশ আর মামলাই তাদের শেষ ভরসা’ কাগইল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন ইজতেমা ময়দানের চার পাশে অবৈধ স্থাাপনা উচ্ছেদ, চলছে প্র¯‘তির কাজ ময়দান সিসি ক্যামেরা ও আইন শৃংখলা বাহিনী দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবে যশোরে পৃথক দ‚র্ঘটনায় মিল শ্রমিক নিহত \ আহত ২ যশোরের চুড়ামনকাটিতে রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে পরিবহনে ডাকাতি বরগুনায় ধানক্ষেতে অর্ধশত ইটভাটা হুমকির মুখে ফসলিজমি ও নদী রক্ষাবাঁধ ঝিকরগাছায় ইজিবাইক চালক ফারুক হত্যার আসামিরা প্রকাশ্যে হত্যা ও মাদক মামলার আসামীদের পক্ষাবলম্বন করলেন এমপির ভাই গিয়াস # হুমকিতে নিরাপত্তাহীনতায় বাদীর পরিবার ‌‌দশ শর্তে দু’পক্ষ বিশ^ ইজতেমা অনুষ্ঠানে সম্মতি স্থানীয় মন্ত্রীর প্রতি লিখিত আবেদন-আমার পরিবারকে বাঁচান টঙ্গীতে সু-বিচার পেতে সাংবাদিক সম্মেলন মনির মজুমদারের এড়লের বিলে ৩ টি খাল খনন শুরু কৃষকের মাঝে আনন্দের বন্যা আগামী মৌসুমে ৪ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো চাষের স্বপ্ন যশোরে পুলিশ পরিচয়ে একের পর এক ছিনতাই আতংক বাড়ছে জনমনে টঙ্গীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা টিএন্ডটি বাজার কমিটির সভাপতি লাঞ্চিত
মূর্তি নষ্টে দেশের ভাবমূর্তিও নষ্ট হয়

মূর্তি নষ্টে দেশের ভাবমূর্তিও নষ্ট হয়

খুলনার খালিশপুরে গত শুক্রবার ক্রিসেন্ট জুট মিলের মধ্যে অবস্থিত মন্দিরের কয়েকটি প্রতিমা ভাঙচুর করা হইয়াছে। মন্দিরে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা পূজা করিয়া বাড়িতে চলিয়া গেলে রাত্রির কোনো এক সময়ে দুর্বৃত্তরা মন্দিরে প্রবেশ করিয়া দুর্গা প্রতিমার হাত, গণেশের শুঁড়সহ কয়েকটি প্রতিমা ভাঙচুর করে। নীলফামারীর ডোমার হইতেও প্রতিমা ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গিয়াছে। আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে এইসকল প্রতিমা তৈরির কাজ চলিতেছিল বলিয়া জানা যায়। ইহার পূর্বে গত ৩০ সেপ্টেম্বর মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে রাতের আঁধারে ১০টি প্রতিমা ভাঙচুর করিয়াছিল দুর্বৃত্তরা। এই ঘটনার দুই দিন পূর্বে একই ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের শ্যামা কালীমন্দির ও রক্ষাকালী মন্দিরের আটটি প্রতিমাও ভাঙচুর করা হইয়া ছিল।
মূলত শারদীয়া দুর্গাপূজা আরম্ভ হইয়া থাকে নূতন প্রতিমা গড়িবার শুরুর দিন হইতে। সাধারণত প্রতিমা তৈরি করিবার কাজটি অন্তত মহালয়ার ১৫-২০ দিন পূর্বেই শুরু হইয়া থাকে। কিন্তু প্রতিবত্সর রাষ্ট্রীয়ভাবে শারদীয়া দুর্গাপূজায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নিরাপত্তার জন্য মোতায়েন করা হয় মহাষষ্ঠী হইতে। গত বত্সর সারাদেশে প্রায় সাড়ে ২৯ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা উদযাপিত হইয়াছে। প্রতি বত্সরই এই মণ্ডপের সংখ্যা বাড়িতেছে। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের জন্য ইহা অত্যন্ত তাত্পর্যপূর্ণ। বাংলাদেশ ঐতিহ্যগতভাবে সামপ্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। শত শত বত্সর ধরিয়া নানা ধর্মের ও জাতিসত্তার মানুষ এখানে শান্তিপূর্ণভাবে সহাবস্থান করিয়া আসিতেছে। কিন্তু রাজনৈতিক মতলব হাসিল করিতে একটি চিহ্নিত মহল পরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন সময়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টা চালাইয়া আসিতেছে। প্রসঙ্গত কক্সবাজারের রামু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর ও রংপুরের গঙ্গাচড়ার দৃষ্টান্ত তুলিয়া ধরা যায়। আশার কথা হইল, প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই সরকার ও প্রশাসন সময়োচিত ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি প্রশংসনীয় দৃঢ়তা ও দূরদর্শিতার পরিচয় দিয়াছে। কিন্তু প্রাথমিক পর্যায়ে কোনো কুচক্রী মহল যখন রাতের আঁধারে প্রতিমা ভাঙচুর করে, সংখ্যালঘুদের মনে ভীতির সঞ্চার করে, সরকারের ভাবমূর্তি নষ্টের পাঁয়তারা করে—তখন অতিসত্ত্বর দুর্বৃত্তদের ধরিয়া দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করা হইলে সংখ্যালঘুদের মনে এই বিশ্বাস সঞ্চারিত হইবে যে, সরকার ও প্রশাসন এই ধরনের অপরাধ বরদাশত করে না। ইহা দুর্বৃত্তদের নিকটও কঠোর বার্তা প্রদান করিবে। সুতরাং কুচক্রী মহল যাহাতে কোনো অজুহাতে সরকারের ভাবমূর্তিকে বিনষ্ট করিতে না পারে সেইজন্য স্থানীয় জনগণ, জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনকে সর্বদা সজাগ থাকিতে হইবে।
বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকের সমান সুযোগ-সুবিধা পাইবার সাংবিধানিক অধিকার রহিয়াছে। ধর্ম, বর্ণ, গোত্র, শ্রেণি, গোষ্ঠী বা সমপ্রদায় যাহা-ই হউক না কেন, আইন যেমন সকলের জন্য সমান, রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা, ধর্মীয় স্বাধীনতা, সাংস্কৃতিক স্বাধীনতা, উত্সব করিবার স্বাধীনতাও সকলের বেলায় সমান। এইখানে কোনো ধরনের বৈষম্য যেন পরিলক্ষিত না হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com